October 20, 2019

এইমাত্র পাওয়া সংবাদ

দুর্দান্ত সাহসী ও সৎ অতিরিক্ত পুলিশ সুপার মোঃ মিজানুর রহমান।

FB_IMG_1568686002841মোঃ আবু ইউসুফ পাটওয়ারীঃ
কোনো থানায় বা জেলায় চারিদিকে যখন অপরাধ দিনদিন বাড়তেই থাকে আইনশৃঙ্খলার ব্যাপক অবনতি হয়। খুন, ধর্ষণ, ছিনতাই রাহাজানি, চাঁদাবাজি প্রকাশ্য দিবালোকে শুরু হয়। কোন মতেই প্রশাসন যখন তা নিয়ন্ত্রণ করতে পারে না ঠিক তখনই ওই থানায় বা জেলায় দুর্দান্ত সাহসী ও সৎ পুলিশ অফিসার পাঠানো হয়। আর ওই পুলিশ অফিসার তার সৎ সাহসকে পুঁজি করে জনগণের শান্তির জন্য দিনরাত এক করে সকল অন্যায়কে বিতাড়িত করে সন্ত্রাস দমনে সফল হয়। বলছিলাম চলচ্চিত্রের কাহিনীর কথা যেমনটা আমরা প্রায়ই সিনেমায় দেখে থাকি পুলিশের ভূমিকায় নায়কের অভিনয়। একজন সৎ ও সাহসী পুলিশ হিসেবে সন্ত্রাসের বিরুদ্ধে সংগ্রাম করে শত বাধা অতিক্রম করে সমাজে আইনের শাসন প্রতিষ্ঠা করেন। এমনটা শুধুমাত্র সিনেমাতেই দেখে থাকি। বাস্তবে পুলিশের দায়িত্ব নিয়ে ব্যাপক বিতর্ক রয়েছে।
পুলিশের নাম শুনতেই জণসাধারণের মনে ভালো মন্দের এক বিরাট দেওয়াল তৈরী হয়। অনেকেই নাক ছিটকানো শুরু করে। সারাজীবন অধিকাংশ ক্ষেত্রেই পুলিশের নেতিবাচক ভাবমূর্তি দেখে আমাদের অনেকের জ্ঞান হয়তো প্রচ- ঝাঁকুনি খায়। কিন্তু পুলিশবাহিনীতেও রয়েছে কিছু অফিসার যারা নিজেদের জীবন সাধারণ মানুষের সেবাই উৎসর্গ করে দিয়েছে। তারা রীতিমত জনসেবায় বিরল দৃষ্টান্ত স্থাপন করছে। আইনের সহযোগিতা সাধারণ মানুষের দুয়ারে পৌছিয়ে দিতে যাদের অসামান্য অবদান রয়েছে।
যারা পুলিশে যোগদান করেছেন শুধু মাত্র সাধারণ মানুষের সেবা করার জন্য। লোভ লালসার উর্ধ্বে থেকে ন্যায়ের পথে জীবন বাজি রাখা এমনই একজন চাঁদপুর জেলার অতিরিক্ত পুলিশ সুপার জনাব মোঃ মিজানুর রহমান। তিনি যোগদানের পর অপরাধমূলক সন্ত্রাসী কার্যকলাপ নেই বললেই চলে। চাঁদপুর জেলার যুব সমাজকে সম্পূর্ণভাবে বুঝাতে সফল হয়েছেন যে মাদক একটি পরিবার ও সমাজকে ধ্বংস করতে যথেষ্ট। গোটা জেলার মানুষের কাছে জনাব মোঃ মিজানুর রহমান। শুধু তাই নয় সারাদেশে যখন ফেসবুকে গুজব ছড়ানো হয় তখন তিনি তার দক্ষতায় তাদের আইনের আওতায় আনতে সক্ষম হন।সাধারণ মানুষের মন জয় করতে সক্ষম হন। মাদক, বাল্যবিবাহ, ছেলে ধরা গুজব, সন্ত্রাস ও জঙ্গীবাদ মোকাবেলায় কঠোর অবস্থান গ্রহণ করেছিলেন।চাঁদপুরকে সম্পূর্ণ মাদকমুক্ত জেলা হিসেবে গড়ে তোলার জন্য তিনি নানা ধরনের পদক্ষেপ গ্রহণ করেছেন। জেলার প্রতিটি উপজেলার থানাগুলোতে কঠোর নির্দেশনা প্রদান করেছেন।তার এমন দুর্দান্ত সাহসী পদক্ষেপের কারনে কোন ধরনের অপরাধীরা ছাড় পাচ্ছে না।

About The Author

Related posts

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *