September 20, 2018

এইমাত্র পাওয়া সংবাদ

কচুয়ায় এইচএসসি ও আলিমে পাশের হার শতকরা ৮৫ ভাগ ॥ জিপিএ-৫ পেয়েছে ২৪ জন।

kachua-photoমোঃ মাসুদ রানা ॥
সারা দেশের ন্যায় ২৩ জুলাই রবিবার কুমিল্লা শিক্ষা বোর্ডের অধীনে প্রকাশিতব্য এইচএসসি পরীক্ষায় চাঁদপুরের কচুয়া উপজেলার ৯টি কলেজের ফলাফল প্রকাশিত হয়েছে। এ বছর কচুয়ায় এইচএসপি পরীক্ষায় মোট ১ হাজার ৬ শত ৮৭ জন পরীক্ষার্থী অংশ গ্রহন করে। ১৩ জন জিপিএ-৫ পাওয়াসহ পাশ করেছে ১ হাজার ৪শত ৩৪ জন। পাশের হার শতকরা ৮৫ ভাগ।
কলেজ পর্যায়ে হাসিমপুর ড. মনসুর উদ্দিন মহিলা কলেজ ১০৬ জন পরিক্ষার্থী অংশ গ্রহন করে ৫ জন জিপিএ-৫ সহ শতভাগ পাশ করে ৬ষ্ঠ বারের নিজেদের সাফল্য ধরে রেখেছে এবং চাঁদপুর জেলা পর্যায়ে দ্বিতীয় স্থান অর্জন করেছে। নিন্দপুর ড. মহীউদ্দীন খান আলমগীর স্কুল এন্ড কলেজে প্রথমবারের মতো ৩১জন পরীক্ষার্থী অংশগ্রহন করে শতভাগ পাশ করে চমক সৃষ্টি করেছে। এছাড়া গুলবাহার আশেক আলী খান স্কুল এন্ড কলেজ উপজেলা পর্যায়ে সর্বোচ্চ ৮জন জিপিএ-৫ পেয়েছে। এ কলেজে মোট পরীক্ষায় অংশ গ্রহন করে মোট ২৬০জন, পাশ করেছে ২৪৩জন। পাশের হার ৯৩.৪৬%। কচুয়া বঙ্গবন্ধু ডিগ্রী কলেজ থেকে এইচএসসি পরীক্ষায় অংশ গ্রহন করে ৪৪৩জন, পাশ করেছে ৩৩৯জন, পাশের হার ৭৬.৫২%। সাচার ডিগ্রী কলেজ থেকে মোট পরীক্ষা অংশ গ্রহন করে ২৯৮জন, পাশ করেছে ২৭৬জন, পাশের হার ৯৩.২৪%। পালাখাল রুস্তম আলী ডিগ্রী কলেজ থেকে মোট পরীক্ষার্থী অংশ করে ২৬০জন, পাশ করেছে ২২৩জন, পাশের হার ৮৫.৭৭%। নুরুল আজাদ কলেজ থেকে মোট পরীক্ষার্থী অংশ গ্রহন করে ৪৬জন, পাশ করেছে ৩৭জন, পাশের হার ৮১%। চাঁদপুর এমএ খালেক মেমোরিয়াল উচ্চ বিদ্যালয় এন্ড কলেজ থেকে মোট পরীক্ষায় অংশ গ্রহন করে ৭২ জন, পাশ করেছে ৪৯জন, পাশের হার ৬২.০৬%। রহিমানগর শেখ মুজিবুর রহমান ডিগ্রী কলেজ থেকে মোট পরীক্ষার্থী ছিল ১৭১ জন, পাশ করেছে ১৩০জন, পাশের হার ৭৬.০২%।
অপরদিকে মাদ্রাসা শিক্ষা বের্ডের অধীনে ১৩টি মাদ্রাসা থেকে ৩শত ৫৪জন পরিক্ষার্থী অংশ গ্রহন করে ১১ জন জিপিএ-৫সহ ৩০৪জন কৃতকার্য হয়। পাসের হার শতকরা ৮৫.৮৭ভাগ। মাদ্রাসার ফলাফলে নিশ্চিন্তপুর ডিএস কামিল মাদ্রাসায় আলিম পরীক্ষায় অংশ গ্রহন করে ৩৮ জন, পাশের শতভাগ, জিপিএ-৫ পেয়েছে ৭জন। মাদ্রাসা পর্যায়ে উপজেলায় এ প্রতিষ্ঠানটি শ্রেষ্ঠ স্থান লাভ করে। মেঘদাইর তাহেরীয়া ফাযিল মাদ্রাসায় ২০জন পরীক্ষার্থী অংশ গ্রহন করে শতভাগ পাশ করে। মনপুরা ইসলামিয়া দাখিল মাদ্রাসায় ১৩ জন পরীক্ষার্থী অংশ গ্রহন করে শতভাগ পাশ করে। শ্রীরামপুর মোহাম্মদীয়া আলিম মাদ্রাসায় মোট ৩২জন পরীক্ষার্থী অংশ গ্রহন করে পাশ করেছে ২৫জন। শতকরা পাশের হার ৭৮%। চৌমুহনী ডিএস আলিম মাদ্রাসায় মোট ৩৭জন পরীক্ষার্থী অংশ গ্রহন করে পাশ করেছে ৩৬জন এবং জিপিএ-৫ পেয়েছে ২জন। শতকরা পাশের হার ৯৭.৩৬%। চাপাতলী লতিফীয়া ফাযিল মাদ্রাসায় মোট ২৪জন পরীক্ষার্থী অংশ গ্রহন করে পাশ করেছে ২১জন। শতকরা পাশের হার ৮৮.৮৮%। আইনগিরী ফাযিল মাদ্রাসা থেকে মোট ১৮জন পরীক্ষার্থী অংশ গ্রহন করে পাশ করেছে ৯জন। শতকরা পাশের হার ৫০%। আইনগিরী ফাযিল মাদ্রাসা থেকে মোট ৩৭জন পরীক্ষার্থী অংশ গ্রহন করে পাশ করেছে ৩৬জন। শতকরা পাশের হার ৯৭.৩৬%। বিতারা ইসলামিয়া আলিম মাদ্রাসা থেকে মোট ২৮জন পরীক্ষার্থী অংশ গ্রহন করে পাশ করেছে ২৩জন। শতকরা পাশের হার ৮২.১৪%। কাদলা ফাযিল মাদ্রাসা থেকে মোট ২১জন পরীক্ষার্থী অংশ গ্রহন করে পাশ করেছে ১৯জন। শতকরা পাশের হার ৯০%। আশ্রাফপুর গণিয়া ফাযিল মাদ্রাসা থেকে মোট ৩৪জন পরীক্ষার্থী অংশ গ্রহন করে পাশ করেছে ২৭জন। শতকরা পাশের হার ৭৯%। মনোহরপুর ফাযিল মাদ্রাসা থেকে মোট ২৮জন পরীক্ষার্থী অংশ গ্রহন করে পাশ করেছে ২০জন। শতকরা পাশের হার ৭১.৪৩%।
এদিকে কলেজ পর্যায়ে ড. মনসুর উদ্দিন মহিলা কলেজ, নিন্দপুর এমকে আলমগীর স্কুল এন্ড কলেজ, মাদ্রাসা পর্যায়ে নিশ্চিন্তপুর ডিএস কামিল মাদ্রাসা, মনপুরা ইসলামীয়া আলিম মাদ্রাসা ও মেঘদাইর তাহেরীয়া ফাযিল মাদ্রাসা শতভাগ উত্তীর্ণ হয়।

About The Author

Related posts

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *