September 19, 2018

এইমাত্র পাওয়া সংবাদ

খালেদা জিয়া একবারও কি হাওরে গেছেন’

bbAW7e_obaidul1আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের বলেছেন, যারা ঢাকায় বসে ত্রাণ নিয়ে কথা বলেন, তাদের নেত্রী (খালেদা জিয়া) কি একবারও হাওরে গেছেন?

বৃহস্পতিবার বিকেলে রাজধানীর রমনা রেস্তোরাঁয় ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের ৫ হল শাখা ছাত্রলীগের নব-গঠিত কমিটির সঙ্গে মতবিনিময় সভায় তিনি এ কথা বলেন।

ওবায়দুল কাদের বলেন, সুনামগঞ্জের দুর্গম হাওর এলাকায় প্রধানমন্ত্রী গেছেন। প্রধানমন্ত্রী, মন্ত্রী, এমপি ও নেতারা টোকেন হিসেবে দুই/তিনটি ত্রাণ দিয়ে চলে যান। বাকীগুলো অন্যরা বিতরণ করেন। আজকে ২২৮ জন তালিকায় ছিল, কথা ছিল প্রধানমন্ত্রী ১০ জনকে ত্রাণ দিবেন। কিন্তু প্রধানমন্ত্রী ২২৮ জনকে দিয়েছেন। এটা শুধু আজকের জন্য নয়। ৩০ কেজি করে চাল ও এক হাজার করে টাকা নতুন ফসল ওঠা পর্যন্ত চলবে। যাদের ঘর নেই, তাদের ঘর করে দেয়ার প্রতিশ্রুতি দিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী।

তিনি বলেন, অনেকে ক্ষমতায় আসতে চায় নিজেদের জন্য, লুটপাটের জন্য, পকেটের উন্নয়নের জন্য। শেখ হাসিনা ক্ষমতায় থেকে মানুষের জন্য একটা মমতা নিয়ে কাজ করেন। ফখরুল সাহেব একটা এলাকায় গেছেন কিন্তু ত্রাণ দেননি। যারা ত্রাণ নিতে এসেছিলেন তারা খালি হাতে ফিরে গেছেন। উনি (ফখরুল) ফটোসেশন করে এক কারাবন্দি নেতার জন্য দোয়া চেয়ে ফিরে এসেছেন।

কাদের বলেন, নারী ক্ষমতায়ন, একটি বাড়ি-একটি খামার, গৃহহীনদের আশ্রায়ন ও ডিজিটাল বাংলাদেশের জন্য শেখ হাসিনা কিংবদন্তি হয়ে থাকবেন। নেতারা পুরুষ শাসিত আওয়ামী লীগ বানাতে চায়। স্থানীয় সরকারে নারী প্রার্থী থাকলেও ঢাকায় তাদের নাম পাঠান না নেতারা। তবুও নেত্রী (শেখ হাসিনা) কোথাও নারী প্রার্থী থাকলে মনোনয়ন দিয়ে দেন।

তিনি বলেন, একটা মৃত্যুর প্রতিবাদ করতে যদি রাস্তা অবরোধ করা হয় তাহলে জরুরি মুমূর্ষু রোগীর কি হবে? প্রতিবাদের নামে হাজার হাজার মানুষকে রাস্তায় কষ্ট দেয়ার কোনো যৌক্তিকতা নেই। এটা কোনো প্রতিবাদের ভাষা নয়।

ছাত্রলীগের নেতাকর্মীদের উদ্দেশ্যে কাদের বলেন, ছাত্র রাজনীতিকে আকর্ষণীয় করতে হবে।যারা লিডার আছো, তাদের আকর্ষণীয় হতে হবে। ছাত্র নেতাদের নৈতিকতার ভিত্তি শক্তিশালী না হলে ছাত্র রাজনীতি আকর্ষণীয় হবে না।

ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের শামসুন্নাহার হল, কবি সুফিয়া কামাল হল, বঙ্গমাতা শেখ ফজিলাতুন্নেসা মুজিব হল, কুয়েত মৈত্রী হল-এই ৫ হল শাখা ছাত্রলীগের পূর্ণাঙ্গ কমিটির নেতাদের নিয়ে মতবিনিময় সভা অনুষ্ঠিত হয়।

মতবিনিময় সভায় আরও উপস্থিত ছিলেন আওয়ামী লীগের কেন্দ্রীয় শিক্ষা বিষয়ক সম্পাদক শামসুন্নাহার চাপা, কেন্দ্রীয় নির্বাহী সদস্য মারুফা আক্তার পপি, ছাত্রলীগের কেন্দ্রীয় সাধারণ সম্পাদক এস এম জাকির হোসাইন, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় শাখা ছাত্রলীগের সভাপতি আবিদ আল হাসান, সাধারণ সম্পাদক মোতাহার হোসেন প্রিন্স প্রমুখ।

About The Author

Related posts

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *