June 22, 2018

এইমাত্র পাওয়া সংবাদ

৬ বিশিষ্ট স্থপতি ও প্রকৌশলীকে সম্মাননা জানালো সেভেন রিংস্ সিমেন্ট

৬ বিশিষ্ট স্থপতি ও প্রকৌশলীকে সম্মাননা জানালো সেভেন রিংস্ সিমেন্ট

মানুষের নিরাপত্তা ও মৌলিক চাহিদা পূরণের জন্য স্থাপনা নির্মাণ একটি নান্দনিক শিল্প হিসেবে পরিণত হয়েছে। আর এর পেছনে বড় ভূমিকা স্থপতি ও প্রকৌশলীদের।

এমন ৬ স্থপতি ও প্রকৌশলীকে সম্মাননা দিয়েছে সেভেন রিংস সিমেন্ট। গতকাল ২৯ ডিসেম্বর, বৃহস্পতিবার ঢাকার লা মেরিডিয়ান হোটেলে আনুষ্ঠানিকভাবে সম্মাননা প্রাপ্তদের প্রতিনিধির হাতে এ সম্মাননা তুলে দেয়ার অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন, ইউনিভার্সিটি অব এশিয়া প্যাসিফিকের উপাচার্য অধ্যাপক ড. জামিলুর রেজা চৌধুরী।‘ট্রিবিউট টু লিজেন্ডস’ শিরোনামের এ আয়োজনে সম্মাননা প্রাপ্তরা হলেন বাংলাদেশী বংশোদ্ভুত আমেরিকান স্ট্রাকচারাল ইঞ্জিনিয়ার ও স্থপতি ফজলুর রহমান খান (এফ আর খান), স্থপতি ও নগর পরিকল্পনাবিদ মাজহারুল ইসলাম, স্থপতি সৈয়দ মাইনুল হোসেন, বুয়েটের প্রথম মহিলা উপচার্য খালেদা একরাম, এজিইডি-এর প্রতিষ্ঠাতা প্রধান প্রকৌশলী কামরুল ইসলাম সিদ্দিক ও বাংলাদেশ প্রকৌশল বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রথম উপাচার্য এম এ রশিদ। নিজ নিজ ক্ষেত্রে অসাধারণ অবদানের জন্য এই ছয়জনকে সম্মাননা জানানো হয়।

প্রধান অতিথির বক্তব্যে অধ্যাপক জামিলুর রেজা চৌধুরী বলেন, স্থাপত্য এবং প্রকৌশলে যুক্ত এ মানুষেরা নিজেদের সেরা কাজটি করার মাধ্যমে আমাদের দেশকে অন্য এক উচ্চতায় নিয়ে গেছেন। প্রকৌশলী এফ আর খান বিংশ শতাব্দির শ্রেষ্ঠতম স্ট্রাকচারাল ইঞ্জিনিয়ার স্বীকৃতি পেয়ে আমাদের দেশের জন্য বিরাট সম্মান বয়ে এনেছেন। একই ভাবে প্রকৌশলী এম এ রশিদ বুয়েটের প্রথম উপাচার্য হিসেবে প্রকৌশল বিষয়টাকে শক্ত একটা ভিতের মধ্যে দাড় করিয়ে গেছেন। স্থপতি মাজহারুল ইসলামকে বলা হয় আধুনিক স্থাপত্যের জনক।

তিনি বলেন, বাংলাদেশ নানা ভাবে এগিয়ে যাচ্ছে। স্থাপনা বা এ শিল্পকে এগিয়ে নেওয়ার ক্ষেত্রে সম্মাননা প্রাপ্ত মানুষদের যে অবদান তা নতুন প্রজন্মের অনেককে অনুপ্রাণিত করছে এবং করে যাবে।

অনুষ্ঠানে জানানো হয়, বিশ্বের অনেক দেশের মত স্থাপত্য শিল্পে এগিয়ে যাওয়া বাংলাদেশ আজ বিশ্ব দরবারে সমাদৃত। আর এটি সম্ভব হয়েছে এদেশের মহান স্থপতি ও প্রকৌশলীদের অসামান্য প্রতিভা আর নিরলস পরিশ্রমের কারনে। এদের মধ্যেই অনেকেই ভবিষ্যতে স্থপতি ও প্রকৌশলীদের কাছে হয়ে আছেন নিরন্তন অনুপ্রেরণার উৎস। এমনই কিছু মহান ব্যক্তিত্বদের প্রতি সম্মান জানাতেই এমন উদ্যোগ।

অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন ইঞ্জিনিয়ার্স ইনস্টিটিউশন, বাংলাদেশের সাবেক সভাপতি প্রকৌশলী অধ্যাপক ড. শামীম জেড. বসুনীয়া, বাংলাদেশ প্রকৌশল বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য অধ্যাপক ড. সাইফুল ইসলাম, ইসলামিক ইউনিভার্সিটি অব টেকনোলজির উপাচার্য অধ্যাপক ড. মুনাজ আহমেদ নূর, ঢাকা প্রকৌশল ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য অধ্যাপক ড. মোঃ আলাউদ্দীন, ইনস্টিটিউট অব আর্কিটেক্টস্, বাংলাদেশের সাধারণ সম্পাদক স্থপতি কাজী এম. আরিফ, সেক্রেটারী প্রফেশন স্থপতি এহসান খানসহ আরো অনেকে।

অনুষ্ঠানে বক্তব্য দেন সেভেন রিংস সিমেন্টের ব্যবস্থাপনা পরিচালক মোহাম্মদ আলী পাশা, প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা শেখ রায়হান আহমেদ ও প্রধান বিপণন কর্মকর্তা আসাদুল হক সুফিয়ানী ও আমন্ত্রিত অতিথিরা। বাংলাদেশের নির্মাণ শিল্পের সাথে জড়িত স্থপতি, প্রকৌশলীসহ বিশিষ্টজনেরা অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন।

About The Author

Related posts

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *