November 18, 2019

এইমাত্র পাওয়া সংবাদ

এরদোগান ছিল লুটেরা, এখন হয়েছে দখলদার: আসাদ

এরদোগান ছিল লুটেরা, এখন হয়েছে দখলদার: আসাদ

সিরিয়ার দক্ষিণ-পূর্বাঞ্চলে তুর্কি হামলার নিন্দা জানিয়ে তুরস্কের প্রেসিডেন্ট রিসেপ তাইয়েপ এরদোগানকে লুটেরা ও দখলদার বলে সম্বোধন করেছেন সিরিয়ার প্রেসিডেন্ট বাশার আল আসাদ।

এ ছাড়া দীর্ঘদিন ধরে চলা গৃহযুদ্ধের জেরে হারানো ভূখণ্ড পুনর্দখল করার অঙ্গীকার করেন আসাদ। খবর রয়টার্সের।

যুদ্ধবিধ্বস্ত ইদলিবপ্রদেশের হোবেইত শহরে গত মঙ্গলবার সিরীয় ও আরব সেনাদের সঙ্গে সাক্ষাৎকালে বাশার আল আসাদ এসব কথা বলেন।

আসাদ বলেন, এরদোগান একজন লুটেরা। এখন তিনি আমাদের ভূখণ্ড দখল করছেন। তিনি বলেন, আমরা আগেও বলেছি, এখনও বলছি- সিরিয়াজুড়ে চলমান নৈরাজ্য ও সন্ত্রাসের অবসান ঘটানোর ক্ষেত্রে ইদলিব যুদ্ধ মুখ্য ভূমিকা পালন করছে।

 এদিকে তুরস্কের সঙ্গে সিরিয়ার সীমান্ত থেকে কুর্দি বাহিনীকে হটাতে একটি চুক্তি করতে সম্মত হয়েছে রাশিয়া ও তুরস্ক। এ চুক্তিকে ‘ঐতিহাসিক’ বলছে দুপক্ষ।

রাশিয়ার প্রেসিডেন্ট ভ্লাদিমির পুতিন ও তুরস্কের প্রেসিডেন্ট রিসেপ তাইয়েপ এরদোগান রাশিয়ার সোচি শহরে এক বৈঠকে উত্তর সিরিয়া পরিস্থিতি নিয়ে একটি সমঝোতায় পৌঁছেছেন। দুই নেতা গতকাল মঙ্গলবার টানা প্রায় পাঁচ ঘণ্টা বৈঠক করেন।

এ ছাড়া রাজনৈতিক উপায়ে সিরিয়া সংকট সমাধানের লক্ষ্যে প্রচেষ্টা অব্যাহত রাখতেও পুতিন ও এরদোগান সম্মত হয়েছেন।

তুরস্কের দক্ষিণাঞ্চলীয় সীমান্ত থেকে কুর্দি বাহিনীকে বিতাড়িত করে একটি ‘নিরাপদ অঞ্চল’ প্রতিষ্ঠার লক্ষ্যে চলতি মাসের ৯ অক্টোবর সামরিক অভিযান শুরু করে তুরস্ক। ব্রিটিশ গণমাধ্যম বিবিসি এ খবর জানিয়েছে।

এর পর যুক্তরাষ্ট্রের মধ্যস্থতায় ১৭ অক্টোবর থেকে পাঁচ দিনের যুদ্ধবিরতিতে সম্মত হয় তুরস্কের এরদোগান সরকার। যুদ্ধবিরতির ওই সময়সীমা শেষ হওয়ার আগেই তুর্কি ও রুশ প্রেসিডেন্টের মধ্যে নতুন করে সমঝোতা হলো।

উত্তর সিরিয়া থেকে যুক্তরাষ্ট্রের প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প মার্কিন সেনা সরিয়ে নেয়ার ঘোষণা দেয়ার মধ্য দিয়ে তুরস্ক সিরিয়ায় হামলা চালানোর ‘সবুজ সংকেত’পায় বলে অভিযোগ ওঠে।

সিরিয়ার বাশার আল আসাদের মিত্র হিসেবে পরিচিত রাশিয়া সিরিয়ায় বিদেশি শক্তির হস্তক্ষেপের বিষয়ে উদ্বেগ প্রকাশ করে আসছিল। নতুন চুক্তি অনুযায়ী যৌথভাবে সীমান্তে টহল দেবে রাশিয়া ও তুরস্ক।

About The Author

Related posts

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *