November 18, 2019

এইমাত্র পাওয়া সংবাদ

ফিলিস্তিনি কিশোরীর ছবি দিয়ে তুরস্কের বিরুদ্ধে গুজব ছড়াচ্ছে কুর্দিরা

ফিলিস্তিনি কিশোরীর ছবি দিয়ে তুরস্কের বিরুদ্ধে গুজব ছড়াচ্ছে কুর্দিরা

ভুয়া ছবি (বায়ে) ও প্রকৃত ছবি (ডানে)।

ফিলিস্তিনের প্রতিরোধ আন্দোলনের আইকন আল-তামিমির ছবি সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে আপলোড করে তুরস্কের বিরুদ্ধে অপপ্রচার চালাচ্ছে কুর্দিরা। এমন অভিযোগ করছে তুরস্ক। খবর তুর্কি গণমাধ্যম ইয়েনি শাফাকের।

গণমাধ্যমটির প্রতিবেদনে বলা হয়, ছবিতে ভুয়া শিরোনাম ব্যবহার করে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে উত্তর সিরিয়ায় চলমান তুরস্কের অভিযানের বিরুদ্ধে অপপ্রচার চালাচ্ছে কুর্দি সমর্থকরা।

ভুয়া ছবিতে দেখা যায়, তুরস্কের পতাকাসহ ও ইউনিফর্ম পড়া এক সৈনিকের সঙ্গে তর্কে লিপ্ত রয়েছে। ওই ছবির শিরোনামে বলা হয়েছে, ছবিটি তোলা হয় গত সপ্তাহে শুরু হওয়া অপারেশন পিস স্প্রিংয়ে। ছবিটি প্রকৃতপক্ষে ২০১২ সালের ইসরাইলি সেনার মুখোমুখি হন ফিলিস্তিনি প্রতিরোধ আন্দোলন কিশোরী তামিমি।

 তার এক আত্মীয়কে রাবার বুলেটে ইসরাইলি সেনা আহত করলে ওই সেনাকে আঘাতের অপরাধে ২০১৭ সালে তামিমি গ্রেফতার হন।

অভিযান শুরুর প্রথম থেকেই কুর্দিরা সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ভুয়া ভিডিও, ছবি এবং তথ্য ব্যবহার করে অপপ্রচার চালাচ্ছে। সীমান্ত নিরাপদ, সিরিয়ার অখণ্ডতা ও সিরিয়ান শরণার্থীদের ফিরিয়ে দিতে চলতি মাসের ৯ অক্টোবর থেকে উত্তর সিরিয়ায় অপারেশন পিস স্প্রিং শুরু করেছে তুর্কি সরকার। উত্তর সিরিয়ার পূর্ব ফোরাত নদী পিকেকে/পিওয়াইডি ও ওয়াইপিজে মুক্ত করতে চায় আঙ্কারা।

অনেক বছর ধরে পিকেকে সন্ত্রাসীদের বিরুদ্ধে প্রচারণা চালিয়ে যাচ্ছে তুরস্ক। পিকেকে সংগঠনটিকে সন্ত্রাসী হিসেবে তুরস্ক, যুক্তরাষ্ট্র ও ইউরোপিয়ান ইউনিয়ন তালিকাভুক্ত করেছে। ওই সংগঠনটির হাতে এ পর্যন্ত ৪০ হাজার মানুষ নিহত হয়েছে। এর মধ্যে নারী, কিশোর ও শিশুরাও রয়েছে।

About The Author

Related posts

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *