October 17, 2019

এইমাত্র পাওয়া সংবাদ

বিদেশি চলচ্চিত্রে কর বাড়ানোর প্রস্তাব সুবর্ণা মুস্তফার

subarna-bg-20190304020107

সংরক্ষিত মহিলা আসনের সংসদ সদস্য সুবর্ণা মুস্তাফা বলেছেন, বিদেশি চলচ্চিত্রের অবাধ প্রদর্শনের কারণে দেশি চলচ্চিত্র মার খাচ্ছে। এ জন্য বিদেশি সিরিয়াল ও চলচ্চিত্র প্রদর্শনে কর এবং দেশি চলচ্চিত্রে প্রণোদনা বাড়ানোর দাবি জানিয়েছেন।

রোববার (৩ মার্চ) জাতীয় সংসদে এমপি হিসেবে প্রথম বক্তব্যে রাষ্ট্রপতির ভাষণের ওপর ধন্যবাদ প্রস্তাবে তিনি এ দাবি জানান।

‘আমরা দেখছি দেশের চ্যানেলগুলো যখন তখন বিদেশি চলচ্চিত্র ও সিরিয়াল চালাচ্ছে’ উল্লেখ করে এগুলো প্রদর্শনের সময় নির্দিষ্ট করে দেয়ারও আহ্বান জানান তিনি।

সুবর্ণা মুস্তাফা বলেন, আমাদের সংস্কৃতির একটি অংশ চলচ্চিত্র। কিন্তু দুঃখজনক হলেও সত্য আমাদের চলচ্চিত্র এখন দুঃসময়ের মধ্য দিয়ে যাচ্ছে। অতি সত্তর দেশের সব জেলায় সিনেমা হল সংস্কার, সিনেপ্লেক্স নির্মাণ, কর মুক্ত, হলগুলোতে ইউটিলিটি বিল ও সিনেমা প্রদর্শনের উপর ট্যাক্স মুক্ত, বিদেশি চলচ্চিত্র প্রদর্শনের উপর ট্যাক্স বাড়ানোসহ দেশি চলচ্চিত্র নির্মাণে প্রণোদনা দেয়ার আহ্বান জানান তিনি।

সেই সঙ্গে লাগামহীন বিজ্ঞাপন ও বিদেশি চলচ্চিত্র প্রদর্শনের সময় নির্ধারণসহ দেশি চলচ্চিত্রের মানোন্নয়নের আহ্বান জানান তিনি।

সুবর্ণা বলেন, ২১ আগস্ট গ্রেনেড হামলায় আরও একবার দেশকে অভিভাবক শূন্য করার চেষ্টা করেছিল স্বাধীনতাবিরোধী শক্তি। জননেত্রী শেখ হাসিনাকে হত্যার চেষ্টা করা হয়। এ সময় তিনি চকবাজারে আগুনে নিহত সবার প্রতি শ্রদ্ধা জানান ।

তিনি বলেন, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার হাত ধরে দেশ এগিয়ে যাচ্ছে। মায়ের মমতা দিয়ে তিনি মিয়ানমার থেকে বাস্তুচ্যুত রোহিঙ্গাদের আশ্রয় দিয়ে বিশ্ব দরবারে মাদার অব হিউম্যানিটি হিসেবে ভূষিত হয়েছেন। বিশ্বের অন্যতম রাষ্ট্রনায়ক হিসেবে পেয়েছেন আর্থ পুরস্কার। শেখ হাসিনা শুধু স্বপ্ন দেখান না, তা বাস্তবায়নও করেন। তিনি আজ স্যাটেলাইট উৎক্ষেপণ করে পুরো বিশ্বকে তাক লাগিয়ে দিয়েছেন। অনেক ষড়যন্ত্র উপেক্ষা করে পদ্মা সেতু-রূপপুর বিদ্যুৎ কেন্দ্র আজ দৃশ্যমান। দেশ আজ উন্নয়নের মহাসড়কে।

এ সময় সুবর্ণা মুস্তাফা তার গলায় একুশে পদক তুলে দেয়া ও এমপি হিসেবে মনোনয়ন দেয়ায় প্রধানমন্ত্রীকে ধন্যবাদ ও কৃতজ্ঞতা জানান।

About The Author

Related posts

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *