November 15, 2018

এইমাত্র পাওয়া সংবাদ

‘একদিন বিশ্বকাপ ট্রফি আমাদের ঘরে আসবে’

‘একদিন বিশ্বকাপ ট্রফি আমাদের ঘরে আসবে’

প্রত্যাশা প্রধান নির্বাচক মিনহাজুল আবেদীন নান্নুর ॥ ‘হোম অব ক্রিকেটে’ বিশ্বকাপ ট্রফি

 

গার্ডিয়ানবিডি ডেক্স : ‘একদিন এই বিশ্বকাপ ট্রফি অবশ্যই আমাদের ঘরে আসবে। এখন আমরা যে প্রক্রিয়ায় এগিয়ে যাচ্ছি তাতে অবশ্যই সামনের বিশ্বকাপে ভাল ফল আশা করি। বিশ্বকাপ শব্দটাই অন্যরকম। এটা ইয়াং স্টারদের সবসময়ই উজ্জীবিত করে। আমার বিশ্বাস আগামী বিশ্বকাপে আমরা ভাল করব।’ বিশ্বকাপ ট্রফি দেখিয়ে কথাগুলো বলেছেন বিসিবির প্রধান নির্বাচক মিনহাজুল আবেদীন নান্নু। তার বিশ্বাস, বিশ্বকাপ একদিন বাংলাদেশে আসবেই।

আগামী বছরের মে থেকে জুলাই পর্যন্ত ইংল্যান্ড এ্যান্ড ওয়েলসে অনুষ্ঠিত হবে ওয়ানডে ক্রিকেট বিশ্বকাপ। এই বিশ্বকাপের ট্রফি বিশ্ব ভ্রমণ করছে। বুধবার বাংলাদেশে এসেছে ট্রফি। প্রথমদিনে মিরপুর শেরেবাংলা স্টেডিয়ামের একাডেমি ভবনে বিশ্বকাপ ট্রফি রাখা হয়। ‘হোম অব ক্রিকেটে’ বিশ্বকাপ ট্রফি রাখা হয়। ট্রফির আগমনে একাডেমি ভবন প্রাঙ্গণ উৎসবমুখর হয়ে ওঠে। শুরুতেই ২০১৯ ক্রিকেট বিশ্বকাপের ট্রফিতে ছোঁয়া দেন নান্নু। সামনে ইউনিসেফ বাংলাদেশের সুবিধাবঞ্চিত শিশুরা থাকেন। নান্নু ট্রফি ছুঁয়ে ফটোসেশন করেন। সুবিধাবঞ্চিত শিশুদের কণ্ঠে শোনা যায় ‘আমরা করবো জয়’ গানটি। এই গানটিতে মুখরিত হয়ে ওঠে একাডেমি ভবন।

জিম্বাবুইয়ের বিপক্ষে সিরিজের জন্য এখন চলছে বাংলাদেশ জাতীয় দলের অনুশীলন ক্যাম্প। ক্যাম্পে থাকা বাংলাদেশ জাতীয় দলের ক্রিকেটার ও স্টাফরা বিশ্বকাপ ট্রফির সঙ্গে আনুষ্ঠানিক ফটোসেশনেও অংশ নেন। ক্রিকেটারদের মধ্যে সর্বপ্রথম মুশফিকুর রহীম ট্রফি ছুঁয়ে দেখেন। এরপর ক্রিকেটারদের মধ্যে আরিফুল হক, নাজমুল ইসলাম অপু, আবু হায়দার রনি, মেহেদী হাসান মিরাজ, ফজলে মাহমুদ রাব্বি, মোহাম্মদ মিঠুন, মাহমুদুল্লাহ রিয়াদ, সাইফউদ্দিন, ইমরুল কায়েসরা ট্রফি স্পর্শ করেন। কখনও ট্রফি উঁচিয়ে ধরেন। কখনও ট্রফি ছুঁয়ে ফটোসেশন করেন। যেন বিশ্বকাপ জেতার আনন্দ লেগেছে তাদের। সেই স্বপ্ন প্রত্যেক ক্রিকেটারদের মধ্যে আছেও। আজ সর্বসাধারণের প্রদর্শনের জন্য ট্রফি রাখা হবে রাজধানীর যমুনা ফিউচার পার্কের সেন্টার কোর্টে। সকাল ১১টা থেকে রাত ৯টা পর্যন্ত থাকবে সেখানে। ১৯ অক্টোবর ট্রফি চলে যাবে সিলেটে। সেখানেও ইউনিসেফ বাংলাদেশের সুবিধাবঞ্চিত শিশুরা শুরুতে ট্রফির সঙ্গে ফটোসেশন করবে। এরপর সর্বসাধারণের প্রদর্শনের জন্য উন্মুক্ত রাখা হবে বিশ্বকাপ ট্রফি। ২০ অক্টোবর ট্রফি যাবে চট্টগ্রামের জহুর আহমেদ চৌধুরী স্টেডিয়ামে। পরদিন বাংলাদেশ থেকে নেপালে নিয়ে যাওয়া হবে ট্রফি। চারদিনের সফরে এসেছে বিশ্বকাপ ট্রফি। ওয়ানডে বিশ্বকাপ শুরুর আগেই বিভিন্ন দেশ ভ্রমণ করবে ট্রফি। ২৭ আগস্ট দুবাইয়ে আইসিসির সদর দফতর থেকে শুরু হয় ট্রফির ভ্রমণ। এটির প্রথম গন্তব্য ছিল ওমানের মাসকট; ২৭ আগস্ট। ৯ মাসে বিশ্বের বিভিন্ন শহরে ঘুরে বেড়াবে ট্রফি। এবারই সবচেয়ে বেশি দেশ ঘুরে বেড়াবে এটি। ৫টি মহাদেশের ২১টি দেশ ও ৬০টি শহরের ক্রিকেট সমর্থকরা ট্রফির সঙ্গে ছবি তোলার সুযোগ পাবেন। দীর্ঘ ভ্রমণ শেষে বিশ্বকাপ শুরুর ১০০ দিন আগে আগামী ১৯ ফেব্রুয়ারি বিশ্বকাপের আয়োজক দেশ ইংল্যান্ডে পৌঁছাবে ট্রফি। ক্রিকেট বিশ্বকাপ শুরু হতে আর সাত মাস বাকি আছে। আগামী বছর ৩০ মে ইংল্যান্ড এ্যান্ড ওয়েলসে বসবে ওয়ানডে বিশ্বকাপের জমজমাট আসর। ট্রফির জন্য লড়বে দশটি দেশ। প্রতিটি দল পরস্পরের বিপক্ষে লীগপর্বে খেলবে। এরপর হবে সেমিফাইনাল ও ফাইনাল। বিশ্বকাপে এবার কোন গ্রুপ নেই। চারটি দল পয়েন্ট তালিকায় ওপরে থেকে খেলবে সেমিফাইনালে। এরপর হবে ফাইনাল। বাংলাদেশ প্রথম ম্যাচ খেলবে ২ জুন ওভালে, দক্ষিণ আফ্রিকার বিপক্ষে। পরেরটি ৫ জুন, একই ভেন্যুতে নিউজিল্যান্ডের বিপক্ষে। এই একটি ম্যাচই দিবারাত্রিতে খেলবে বাংলাদেশ। ৮ জুন ‘পয়া ভেন্যু’ কার্ডিফে বাংলাদেশ খেলবে স্বাগতিক ইংল্যান্ডের বিপক্ষে। ১১ জুন ব্রিস্টলে বাংলাদেশের প্রতিপক্ষ শ্রীলঙ্কা। ১৭ জুন টন্টনে ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিপক্ষে খেলবেন মাশরাফিরা। ২০ জুন ট্রেন্টব্রিজে অস্ট্রেলিয়ার সঙ্গে খেলার পর ২৪ জুন সাউদাম্পটনে বাংলাদেশ পাবে আফগানিস্তানকে। উপমহাদেশের দুই প্রতিদ্বন্দ্বী ভারত-পাকিস্তানকে বাংলাদেশ পাচ্ছে প্রাথমিক পর্বের প্রায় শেষদিকে। ২ জুলাই বার্মিংহামে ভারতের বিপক্ষে লড়বে বাংলাদেশ। ৫ জুলাই লর্ডসে বাংলাদেশের প্রতিপক্ষ পাকিস্তান। ৯ জুলাই ম্যানচেস্টারে বিশ্বকাপের প্রথম সেমিফাইনাল, ১১ জুলাই বার্মিংহামে দ্বিতীয় সেমিফাইনাল। ১৪ জুলাই লর্ডসে ফাইনাল।

সেই ফাইনালে বাংলাদেশকে দেখতে চান সবাই। শুধু ফাইনালেই নয়, শিরোপাটাও বাংলাদেশের ঘরে আসবে সেই আশাও করা হচ্ছে। মেহেদী হাসান মিরাজ তো বলেই দিয়েছেন, ‘সবারই স্বপ্ন থাকে বিশ্বকাপে ভাল খেলার। আশাকরি ভাল কিছুই হবে। দলের সবাই ট্রফি জেতার জন্যই খেলবে।’ সেই স্বপ্ন পূরণ হলে আবারও দেশের ক্রিকেটাররা বিশ্বকাপ ট্রফি উঁচিয়ে ধরবেন।

About The Author

Related posts

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *