June 23, 2018

এইমাত্র পাওয়া সংবাদ

হেলমেট পরে বোলিং!

ক্রিকেট মাঠে নিরাপত্তা নিয়ে ঝুঁকি কেউই নিতে চান না। ব্যাটসম্যানরা প্যাড, গ্লাভস, হেলমেট ছাড়াও একাধিক আভ্যন্তরীন আবরনি পরে মাঠে নামেন। উইকেটকিপারাও স্ট্যাম্পের কাছে দাঁড়ানোর সময় প্যাড-দস্তানার সঙ্গে হেলমেট ব্যবহার করেন। ক্লোজ-ইন ফিল্ডাররা মাথা বাঁচাতে হেলমেট পরেন।2 এমনকি আম্পায়ারদেরও হেলমেট পরে খেলা পরিচালনা করতে দেখা গেছে। আর তারই জের ধরে এবার বোলারদেরকেও সুরক্ষাকবচ ব্যবহার করতে দেখা গেল।

নিউজিল্যান্ডের ঘরোয়া টি-টোয়েন্টি ক্রিকেটে ওটাগোর ওয়ারেন বার্নেস প্রথমবার পরীক্ষামূলকভাবে শিরস্ত্রাণ পরে বল করলেন। হ্যামিল্টনে নর্দান ডিস্ট্রিক্টসের বিরুদ্ধে ম্যাচে বল করার সময় হেডগিয়ার ব্যবহার করতে দেখা যায় তাকে। এই হেডগিয়ার পুরোপুরি হেলমেটের আদলে তৈরি নয়। মাথা ও মুখ একসঙ্গে রক্ষা করবে হেলমেট ও মাস্কের মিশ্রণে তৈরি এই নিরাপত্তা উপকরণটি। বেসবল ক্যাচাররা খানিকটা এইরকমই হেলমেট ব্যবহার করেন।

উল্লেক্য, মাস কয়েক আগে নটিংহ্যামশায়ারের লিউক ফ্লেচার বল করার সময় ফলো-থ্রু’য়ে মাথায় চোট পেয়েছিলেন। দ্রুত তাকে হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হলে নভেম্বর পর্যন্ত মাঠের বাইরে ছিটেক গিয়েছিলেন ফ্লেচার। সেই ঘটনার পরই সেফটি-গিয়ার ব্যবহারের পরিকল্পনা মাথায় আসে ওটাগো ক্রিকেটারের। কোচ রব ওয়াল্টারের সঙ্গে অভিনব এই হেলমেটের নক্সা তৈরি করেন ওয়ারেন।

About The Author

Related posts

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *