May 27, 2018

এইমাত্র পাওয়া সংবাদ

ঈদুল ফিতরের প্রেরণায় বঞ্চিতদের প্রতি সহমর্মিতার হাত বাড়িয়ে দেয়ার আহ্বান খালেদার

IJ6IMJ_khaleda brifingঈদুল ফিতরের প্রেরণায় উদ্দীপ্ত হয়ে সমাজের অপেক্ষাকৃত দরিদ্র, অবহেলিত ও বঞ্চিত মানুষের প্রতি সাহায্য ও সহমর্মিতার হাত বাড়িয়ে দেওয়ার জন্য মুসলমানদের প্রতি আহ্বান জানিয়েছেন বিএনপির চেয়ারপারসন খালেদা জিয়া।

পবিত্র ঈদুল ফিতর উপলক্ষ্যে শনিবার দুপুরে বিএনপির সিনিয়র যুগ্ম মহাসচিব অ্যাডভোকেট রুহুল কবির রিজভী স্বাক্ষরিত এক বাণীতে তিনি এ আহ্বান জানান।

খালেদা জিয়া তার বাণীতে দেশীয় উৎপাদক ও বিপন্নদের কথা ভেবে সচ্ছল মানুষদের বিদেশে না গিয়ে ঈদের কেনাকাটা দেশেই করারও আহ্বান জানিয়েছেন।

পাশাপাশি ঈদুল ফিতরের শুভেচ্ছা জানিয়ে খালেদা জিয়া বলেন, ‘ব্যক্তিজীবনকে সুন্দর, পরিশুদ্ধ ও সংযমী করে গড়ার লক্ষ্যে মোমিন মুসলমানদের মাসব্যাপী সিয়াম সাধনার পর অনাবিল আনন্দের বার্তা নিয়ে ঈদুল ফিতর সমাগত।’

বিএনপির চেয়ারপারসন বলেন, ‘ঈদুল ফিতরের উৎসবে সমাজের সব ভেদাভেদ ও সীমানা অতিক্রম করে মানুষের মধ্যে মহামিলন ঘটে, সৃষ্টি হয় পরস্পরের প্রতি আন্তরিক শুভেচ্ছাবোধ। ধনী-গরিব, উঁচু-নিচু নির্বিশেষে সব মানুষকে এক কাতারে দাঁড় করায় ঈদ। হানাহানি, হিংসা, বিদ্বেষ ও তিক্ততার গ্লানি থেকে মানুষের মনকে এক স্বর্গীয় শান্তি ও সম্প্রীতির চেতনা দেয় ঈদ। তাই এ উৎসবের দিনে সব মুসলমান নর-নারীকে সৌহার্দ্যের বন্ধনে আবদ্ধ হয়ে একসঙ্গে আনন্দ উপভোগ করতে হবে।’

বিবৃতিতে খালেদা জিয়া আরো বলেন, ‘ঈদুল ফিতর নির্মল আনন্দ উৎসবের মধ্য দিয়ে একটি গুরুত্বপূর্ণ মর্মবাণী মানবজাতির কাছে পৌঁছে দেয়, তা হলো— ‘সকলের তরে সকলে আমরা’। এই মর্মবাণী মানসিক কদর্য, অন্যায় ও নিষ্ঠুর সামাজিক অসাম্যকে অতিক্রম করে এক নিবিড় ভ্রাতৃত্ববোধের প্রেরণা জাগায়। এই প্রেরণায় উদ্দীপ্ত হয়ে সমাজের অপেক্ষাকৃত দরিদ্র, অবহেলিত ও বঞ্চিত মানুষের প্রতি সাহায্য ও সহমর্মিতার হাত বাড়িয়ে দেওয়া মুসলমান হিসেবে আমাদের কর্তব্য।’

খালেদা জিয়া বলেন, ‘চাঁদাবাজির জুলুম, সন্ত্রাসের নানান ডালপালা এবং নিত্যপণ্যের চরম মূল্যবৃদ্ধির অভিঘাত সত্ত্বেও ঈদ আমাদের জাতীয় জীবনে সংস্কৃতির দ্যোতক, আবহমান কাল থেকে শুভেচ্ছা ও আনন্দের আদান-প্রদান।’

About The Author

Related posts

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *