November 21, 2018

এইমাত্র পাওয়া সংবাদ

ইংল্যান্ডের বিপক্ষে রান করা চ্যালেঞ্জ: তামিম

image_161598_0ঢাকা: বড় দলগুলোর মধ্যে সাম্প্রতিক সময়ে বাংলাদেশের বড় শিকার ইংল্যান্ড। পরপর দুটি ওয়ানডে বিশ্বকাপে ইংলিশদের হারিয়েছে টাইগাররা। ২০১১ সালে ঘরের মাঠে ও ২০১৫ বিশ্বকাপে অস্ট্রেলিয়ায় ইংল্যান্ডকে হারিয়েছিল বাংলাদেশ। এর মাঝে সর্বশেষ বিশ্বকাপে তো মাশরাফি বাহিনীর কাছে হেরে টুর্নামেন্ট থেকেই ছিটকে পড়ে ইংল্যান্ড।

ইংল্যান্ডের বিপক্ষে তামিম ইকবালের রয়েছে সুখস্মৃতি। ইংলিশদের বিরুদ্ধে সঙ্গে কয়েকবার হেসেছে তামিমের ব্যাট। ৪ টেস্টে ৫০৫ রান করেছেন তিনি। রয়েছে ২টি সেঞ্চুরি। ৯ ওয়ানডে খেলে ২৬৫ রান করেছেন। যার মধ্যে রয়েছে ১টি সেঞ্চুরি।

আগামী অক্টোবরে বাংলাদেশ সফরে আসছে ইংল্যান্ড। এবারও কি আগের পারফরম্যান্সের পুনরাবৃত্তি হবে কিনা জানতে চাইলে তামিম বলেন, “আমি শেষ যাদের সঙ্গে ভালো খেলেছি এবারও তাদের বিপক্ষে ভালো খেলবো এমন কোন কিছু না। আমি যেটা সবসময়ই বলি ইংল্যান্ডের বিপক্ষে রান করা সবসময়ই চ্যালেঞ্জ কারণ ওদের বেশ কিছু কোয়ালিটি বোলার আছে। আমার বেস্ট ক্রিকেট খেলতে হবে ওদের বিপক্ষে রান করতে হলে আর আগে রান করেছি বলেই এখন রান করে ফেলবো এমন কিছুনা, হয়তো ইকুয়েলি আমাকে আরও বেশি কষ্ট করতে হবে। যদি আমি আমার প্রসেস ঠিক রাখি, আমার মাইন্ডসেট ঠিক রাখি তাহলে আমার সাকসেস হবার সুযোগ থাকবে।”

ইংল্যান্ডের বিরুদ্ধে আসন্ন সিরিজে ভালো প্রতিদ্বন্দ্বিতা গড়তে আশাবাদী তামিম। বুধবার মিরপুরে সাংবাদিকদের তিনি বলেন, “দেশের মাটিতে খেলে তখনই বাংলাদেশের একটা সুযোগ থাকে। এখন সম্প্রতি গত দুই বছর ধরে যে ধরণের সংস্করণই হোক না কেন টি-২০, টেস্ট বা ওয়ানডে। তবে টি-২০ ও ওয়ানডেতে আমাদের রেকর্ডটা একটু ভালো তাই বলে টেস্টে যে আমরা ভালো করতে পারবো না, এমন কিছুই না। ইংল্যান্ড অবশ্যই কঠিন তাই বলে ওদের হারানো সম্ভব না, ওদের বিপক্ষে ভালো খেলা সম্ভব না, এমন কিছু নেই।”

গত বছরের মতো নিজের ব্যাটিংয়ে ধারাবাহিকতা ধরে রাখার বিষয়ে বাঁহাতি এ ওপেনার বলেন, “মানুষ যখন ভালো খেলতে থাকে তখন যতটা ম্যাচ খেলা সম্ভব হয় ততটাই ব্যাটসম্যানের জন্য ভালো। আমি গত বছর একটা ভালো রিদমে ছিলাম তখন যদি আরও কিছু ম্যাচ খেলতে পারতাম তাহলে আমার পারফরম্যান্স আরও ভালো হতে পারতো। এটাতো আমার হাতে না, এটা আসলে এফটিপি যেটা থাকে তা ফলো করতে হয়। আমার চেষ্টা থাকবে আমার যে মাইন্ডসেট ছিল, যে ব্যাটিং এপ্রোচ ছিল আমার, আমি সেইভাবেই এপ্রোচ ধরে রাখার চেষ্টা করবো। বাকিটা ভাগ্যের উপর নির্ভর করবে।”

About The Author

Related posts

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *