October 16, 2018

এইমাত্র পাওয়া সংবাদ

শিক্ষার্থীদের মুক্তির পর জাবির অবরোধ প্রত্যাহার

কুমিল্লা ভিক্টোরিয়া সরকারি কলেজের শিক্ষার্থী ও নাট্যকর্মী সোহাগী জাহান তনু হত্যার বিচার দাবির অবরোধ কর্মসূচি থেকে আটক জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয়ের ১২ শিক্ষার্থীকে ছেড়ে দিয়েছে পুলিশ।

সোমবার বিকালে তাদের ছেড়ে দেয়া হয়। এরপর শিক্ষার্থীরা তাদের অবরোধ কর্মসূচি প্রত্যাহার করে নেয়।

এর আগে বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থী ও সমাজতান্ত্রিক ছাত্র ফ্রন্ট জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয় শাখার ভারপ্রাপ্ত সভাপতি মাসুক হেলাল অনিক, সাধারণ সম্পাদক সুস্মিতা মরিয়ম, প্রচার সম্পাদক আব্দুল খালেক উজ্জ্বল, বাংলাদেশ ছাত্র ইউনিয়ন জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয় সংসদের সাধারণ সম্পাদক আবিদ সরকার সোহাগ, দপ্তর সম্পাদক সিয়াম রায়হান, কার্যকরি সদস্য রাকিব হাসান এবং বিভিন্ন সংগঠনের জিসান জামিল, চন্দন চিক মিত্র, মিতুল মাহমুদ, তুষার, আকাশ ও তানিজল হক তানিকে আটক করে পুলিশ।

এরপর তাদের মুক্তির জন্য বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসনকে এক ঘণ্টার সময় বেঁধে দেয় তিন সংগঠনের নেতারা।

সোমবার বিশ্ববিদ্যালয়ের রেজিস্ট্রার ভবন ঘেরাও কর্মসূচি থেকে দুপুর সাড়ে ১২টায় এই আলটিমেটাম দেন জাবির ছাত্র ইউনিয়নের সদস্য ও প্রগতিশীল ছাত্রজোটের সংগঠক নাহিদ তাসনিম জাহান রিয়া।

উল্লেখিত সময়ের মধ্যে নেতাকর্মীদের মুক্তি দেয়া না হলে প্রক্টরের পদত্যাগে এক দফা দাবিতে আন্দোলনে যাওয়ার হুমকি দেন তিনি।

এরপর উদ্ভুত পরিস্থিতিতে বিশেষ বৈঠক করে বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসন। বৈঠকে উপস্থিত ছিলেন বিশ্ববিদ্যালয়ের ভিসি অধ্যাপক ফারজানা ইসলাম,প্রো-ভিসি অধ্যাপক আবুল হোসেন,ট্রেজারার ড.আবুল খায়ের, প্রক্টর অধ্যাপক তপন কুমার সাহা ও শিক্ষক সমিতির সাবেক সভাপতি ড. মুহাম্মদ খবির উদ্দিন।

বৈঠকের পরেই শিক্ষার্থীদের ছেড়ে দেয় পুলিশ।

এর আগে সকালে তনুসহ অব্যাহত গুম-খুন-ধর্ষণ ও বিচারহীনতার বিরুদ্ধে জাবির প্রান্তিক গেটের সামনে অর্ধদিবস হরতাল পালনের অংশ হিসেবে ঢাকা-আরিচা মহাসড়ক অবরোধ করে প্রগতিশীল ছাত্র জোট, জাহাঙ্গীরনগর সাংস্কৃতিক জোট ও সাম্রাজ্যবাদ বিরোধী ছাত্র ঐক্যের নেতাকর্মীরা।

এ সময় পুলিশ তাদের বাধা দিলে সংঘর্ষ বাধে। এতে ৩০ জন শিক্ষার্থী আহত হন। কর্মসূচি থেকে পুলিশ ১২ জনকে আটক করে।

এরপর সাড়ে ১০টা থেকে আটকদের মুক্তির দাবিতে রেজিস্ট্রার ভবন ঘেরাও করে বিক্ষোভ প্রদর্শন করেন নেতাকর্মীরা।

About The Author

Related posts

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *