August 15, 2018

এইমাত্র পাওয়া সংবাদ

শাহরাস্তি উপজেলা ওয়ান-ইলেভেনের ঐ সময় যাহা ঘটেছে তাহা নিরপেক্ষ কমিশনের মাধ্যমে তদন্ত করার দাবি॥

imagesওয়ান ইলেভেনের সময় এক শ্রেনীর দূর্নীতি বাজ ব্যক্তিরা ১/১১ তে পুজিঁ করিয়া নিরহ মানুষের উপর নির্যাতন ও হয়রানী করেছেন। তাহা শাহরাস্তি উপজেলার-ও একটি অংশ। ঐ সময় কাল সময় গোটা উপজেলা ও পুলিশ প্রশাসনটি নিয়ন্ত্রণ করতেন শাহারাস্তির প্রতিপয় স্বার্থান্নেসী একটি মহল। যাহা ১৯৭১ সালের হানাদার বাহিনীকেও হার মানিয়েছে। ঐ সময় ঢাকা সাংবাদিক ইউনিয়ন এর সদস্য। তাঁতী লীগ ঢাকা মহানগর দক্ষিণের সাবেক সভাপতি আজিজুল হক পাটোয়ারী শাহারাস্তির সাংহাই সহ বিভিন্ন এলাকার দূর্নীতির তথ্য পত্রিকায় প্রকাশ করায় তৎকালীন শাহারাস্তির থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা নূরুল আফসার ভূঁইয়া ও তার সহযোগী এস.আই জাহিদ কে দিয়ে সাংহাই গ্রামের নিরহী মানুষকে ভয়ভীতি দিয়ে সাংবাদিক পরিবারের বিরুদ্ধে ১৫টি মামলা দায়ের করা অথচ সকল মামলায় বিজ্ঞ আদালত থেকে বেখসুর খালাস পান সাংবাদিক পরিবার। এমনকি জরুরী বিধিমালা ও এই পরিবারের বিরুদ্ধে মামলা দায়ের করে শাহরাস্তি থানা। ১/১১ এর কিছু স্মৃতি নিয়ে ঢাকা সাংবাদিক ইউনিয়ন জাতীয় প্রেসক্লাবে একান্ত আলোচনা কালে আজিজুল হক পাটোয়ারী বলেন ১/১১টি ছিলেন হানাদার বাহিনীর চেয়েও ভয়ংকর যাকে যেখানে পাইতো তাকে সেখানে হত্যা করত। ঐ সময় আমার পরিবারটি প্রায় ২ কোটি টাকার ক্ষতিগ্রস্থ হয়েছে একমাত্র দূর্নীতি পরায়ন পুলিশ কর্মকর্তা নূরুল আফসার ভূঁইয়া ও তার সহযোগী জাহিদ এর বিরুদ্ধে এলাকার জনগনের স্বার্থে একটি লিগেল নোটিশ করা ঔ লিগ্যাল নোটিশটি ইস্যু করে শাহরাস্তি থানায় এসব মিথ্যা হয়রানীমূলক মামলা হয়েছিল। তিনি বলেন আমার উদ্যোগে সাংহাই গ্রামে স্কুল মসজিদ মাদ্রাসা স্থাপিত হয়েছে, আর আমার পরিবারের বিরুদ্ধে হয় ১৫টি মামলা। ঔ সময় লক্ষ লক্ষ টাকা হাতিয়ে নিয়েছে শাহরাস্তি পুলিশ প্রশাসন। তাদের মধ্যে অনেক পুলিশ কর্মকর্তা এখনও শাহরাস্তি থানায় কর্মরত আছেন। ১/১১ এর সময় দেশের বহু রাজনীতিবীদ ও ব্যবসায়ীরাও নির্যাতিত হয়রানী হয়েছে তাই নির্যাতিতকারীরা নিরপেক্ষ ভাবে একটি তদন্ত কমিশনের মাধ্যমে তদন্ত করিয়া দোষী ব্যক্তিদের বিরুদ্ধে আইনগত ব্যবস্থা গ্রহণের জন্য সরকারের কাছে জোরদাবী জানান।

About The Author

Related posts

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *